লংগদুতে ইসলামী ছাত্রী সংস্থার ৬ নেত্রীসহ আটক সাত।

লংগদুতে ইসলামী ছাত্রী সংস্থার ৬ নেত্রীসহ আটক সাত।

55
SHARE

নিজস্ব প্রতিনিধি :মোঃআহসান উল্লাহঃ-রাঙামাটির লংগদু উপজেলার মুসলিমব্লক এলাকায় অভিযান চালিয়ে জামাত ইসলামীর সহযোগিসংগঠন ইসলামী ছাত্রী সংস্থার সাত নেত্রীকে আটক করেছে পুলিশ।গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আটক হওয়া এই সাত ছাত্রীসংস্থার নেত্রীর মধ্যে একজন স্থানীয় এবং বাকী ছয়জন রবিবারই অজ্ঞাত কারণে লংগদু উপজেলায় যান। পুলিশ ধারণা করছে,নাশকতা সৃষ্টির চেষ্টা ও সরকারবিরোধীপ্রচারণার অংশ হিসেবই চট্টগ্রাম,ঢাকা ও দেশের বিভিন্নস্থান থেকে এই সাত নেত্রী একই স্থানে জড়ো হয়েছেন।পুলিশ জানিয়েছে,সোববার সকালে মুসলিম ব্লক এলাকা থেকে রাবেতা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ওসমান গণির বাসা থেকে তাদের আটক করা হয়।

এসব ওসমান গনি পালিয়ে গেলেও তার স্ত্রী ফাতেমা আক্তার মুন্নীকে আটক করে পুলিশ।আটককৃতরা হলেন, রাঙামাটির শহরের কাঠালতলি এলাকার মোছাঃ শাহানাজ (২৭), লক্ষীপুরের মোছাঃ নাছিমা আক্তার (৩০),রাঙামাটি শহরের আমানতবাগ এলাকার মোছাঃ মাহমুদা (২৯), ঢাকার বনশ্রী থেকে আসা মোছাঃ তাহসিনা ফাতিমা (২৪),চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার মিহতাহুল জান্নাত (২১), চট্টগ্রামের চান্দগাও এলাকার মোছাঃ সাহিদা (২৫)। এরা সবাই ইসলামী ছাত্রী সংস্থার বিভিন্ন পর্যায়ের নেত্রী বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানিয়েছেন তারা। এই ছয় তরুণী যে বাসায় উঠেছেন,সেই বাসার মালিক রাবেতা মডেল স্কুলের শিক্ষক ও জামাত নেতা ওসামন গনির স্ত্রী মোছাঃ ফাতেমা আক্তার মুন্নি (৩৮)’কে আটক করেছে পুলিশ।লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রঞ্জন কুমার সামন্ত জানিয়েছেন, ‘যুদ্ধপরাধ মামলায় মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত মীর কাশেম আলীর প্রতিষ্ঠিত রাবেতা মডেল স্কুলের শিক্ষক ও জামাত নেতা ওসমান গনি এবং তার স্ত্রীর মোছাঃ ফাতেমা আক্তার মুন্নির বাসায় মহান স্বাধীনতা দিবসে নাশকতায় জন্য গোপন বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে, পুলিশ এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালায়,এবং এদের আটক করা হয়। তাদের কাছথেকে জিহাদী বইসহ সরকার বিরোধী বই ও প্রচারপত্র পাওয়া গেছে। তিনি আরো জানান, তাদের আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মামলা দায়েরকরা হবে।