আগুনে পোড়া বস্তিবাসীর ঠাঁই নির্মাণাধীন ভবনে

আগুনে পোড়া বস্তিবাসীর ঠাঁই নির্মাণাধীন ভবনে

36
SHARE

নিউজ ডেস্ক:রাজধানীর মিরপুর-১২ নম্বরে ইলিয়াস আলী মোল্লা বস্তিতে আগুনে সব হারিয়ে নিঃস্ব বস্তিবাসী। সেখানে প্রায় ৮ হাজার পরিবার এখন পথে বসেছেন। ঘটনার পর অনেকে আশার ফুলঝুরি ছড়ালেও তা বাস্তবে রূপ নেয়নি। বর্তমানে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন ভুক্তভোগীরা। পোড়া বস্তিতে কেউ গেলেই সাহায্যের আশায় ভিড় জমাচ্ছেন বস্তিবাসী।

বৃহস্পতিবার ইলিয়াস আলী মোল্লা বস্তিতে সরেজমিনে দেখা যায়, আগুন লেগে সব পুড়ে ছাঁই। অনেকেই পরনের কাপড় নিয়ে জানে রক্ষা পেয়েছেন। এখন চোখের পানি ছাড়া আর কোনো সম্বল নেই। সব হারিয়ে এখন মাথা গোঁজার ঠাঁই অলিগলি, পরিত্যক্ত ও নির্মাণাধীন ভবন। বস্তির আশপাশে কোনো অচেনা মানুষ দেখলেই সাহায্যের আশায় ভিড় জমান।

আগুনে সব হারানো সালমা ও তার পরিবারের আট সদস্য বস্তির পাশের একটি ভাঙা ঘরে আশ্রয় নিয়েছেন। চারপাশে পলিথিন আর চটের ছালা দিয়ে মাথা গোঁজার ঠাঁই বানিয়েছেন। উপার্জন ক্ষমতা কেবল দুই বোন ও এক ভাইয়ের। তাদের টাকায় সংসার চলে। কারণ বাবা ও এক ভাই অসুস্থ। তিনজনের আয়ে বস্তিতে সুখের সংসার গড়ে তুলেছিল তারা। মাসিক তিন হাজার ভাড়ায় একটি ঘরে থাকতেন।