চীনের দুই হাজার বছর আগের সৈরাচারী সম্রাটের রহস্যময়ী ও ভয়ানক ইতিহাস।

চীনের দুই হাজার বছর আগের সৈরাচারী সম্রাটের রহস্যময়ী ও ভয়ানক ইতিহাস।

73
SHARE

চীন গবেষকদের গবেষণায় বেড়িয়ে এল ২০০০ হাজার বছর আগের চীনের সম্রাজ্য শাসনের সত্য ইতিহাস। আজ তার ১ম পর্ব :এটি দু,হাজার বছর আগের ঘটনা। চীনের কয় একশত বছর আগের দেশ শাসন কে অন্য দৃষ্টি ভঙ্গিতে পালটে দিয়েছিলেন ১ম সম্রাট।তিনি সৈরাতন্ত্রী শাসন শুরু করেন।তার সামনে প্রত্যেক মন্ত্রী, সৈন্য ও প্রজাদের মাথা নিড়িঁয়ে থাকতে হবে।সম্রাটের ১ম পরিকল্পনা ঘোষণা করেন যে,তিনি হলেন ১ম ও সর্বাপেক্ষা, মহান ও অলৌকিক সম্রাট।এই ঘোষণা শুনে মন্ত্রী সভায় ও প্রজাদের টনক নড়ে যায়।তিনি বিশ্বাস করতেন যে,ঈশ্বর তাকে পাঠিয়েছিলেন এই পৃথিবী শাসন করার জন্য।সম্রাটের ২য় ঘোষণা পুরো সম্রাজ্য কে নাড়িঁয়ে দেয়।তিনি বলেন, আমি তোমাদের ছোট ছোট সম্রাজ গঠনের জন্য কোন জায়গা দেব না,আমি দেব না কোন পদ,কোন ক্ষমতা কিংবা কোন অনুদান। এই কথার প্রেক্ষিতে সম্রাটের ১ম সন্তান মন্ত্রী কে বলেন, এই তো ধ্বংশের আবাস।বন্ধ করতে বলুন এই সব।শুরু হল রক্তক্ষয়ী দিনের সূচনা।প্রজাদের প্রতিবাদ করার সাহস ছিল না কারো।সাহায্য চাইতে লাগলো তারা রাজ্যের প্রভাবশালীদের কাছে।সম্রাট অলৌকিক ক্ষমতায় নিজেকে বিশ্বাস করতেন।নিজেকে স্বর্গের সন্তান মনে করতেন।যৌতিষী তার পরিকল্পনাকে বাধা দিলে তাকে হত্যা করা হয়।তার শাসন ব্যাতিত আর কোন পুরাতন পুথিঁ গত লিখিত আইন চলবে না।কেউ সম্রাটের কথা অবাধ্য করলে তাকে সাথে সাথে হত্যা করা হতো।পিকি ইউনিভারসিটি প্রফেসর চেন নিসিং এই দুই হাজার বছর আগের সৈরাচারী সম্রাটের ঘটনার সূত্রপাত করেন।বন্ধী মন্ত্রী গণ কে মাথা কেটে পেলা হতো কেননা তারা সম্রাট বিরোধী কথা বলতো।কেউ বিপক্ষ পন্তির সুনাম করলেও তাকে হত্যা করা হতো।তিনি বলতেন ইহা রাষ্টদ্রোহীতা। অর্থাৎ তাদের অপরাধী সাজিয়ে জনসম্মুখে হত্যা করা হতো।