জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছে...

জিয়া অরফানেজ ট্রাষ্ট মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছে আদালত।

39
SHARE

কিউ২৪ নিউজ ডেস্ক : জিয়া অরফানেজ মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছে আদালত। এই মামলায় তারেক রহমানসহ অন্য ৫ আসামীর ১০ বছর কারাদণ্ড এবং ২ কোটি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এই মামলায় আদালতে ১১টি অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

খালেদা জিয়ার এই মামলার রায়কে ঘিরে গত কয়েকদিন ধরেই উত্তপ্ত রাজনীতির অঙ্গণ। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা আর যান চলাচল সীমিত থাকায় ঢাকা শহরে থমথমে পরিবেশের সৃষ্টি হয়। যদিও পুলিশ প্রশাসন ও র‍্যাবের পক্ষ থেকে জনগনকে আতিঙ্কত না হওয়ার জন্য বলা হয়েছিল, কিন্তু এ আশ্বাসবাণী খুব বেশি কাজে লাগেনি।

আজ বৃহস্পতিবার খালেদা জিয়া দুপুর পৌনে দুইটার দিকে আদালতে পৌঁছান। এর আগে সকাল পৌনে নয়টায় মামলার অন্য দুই আসামি সলিমুল হক ও শরফুদ্দিন আহমেদকে আনা হয় আদালতে। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের আইনজীবীরাও উপস্থিত আছেন। পুরান ঢাকার বকশিবাজারের বিশেষ আদালতে চলছে মামলার কার্যক্রম। বেলা পৌনে বারোটার দিকে গুলশানের বাসা থেকে আদালতে উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। খালেদা জিয়ার গাড়ি বহর মগবাজার এলাকায় পৌঁছালে দলের নেতাকর্মীরা চারপাশ থেকে ঘিরে ধরে।

পরে কাকরাইল ও মৎস্য ভবন এলাকায়, নেতা কর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় দুই পুলিশ সদস্য আহত হন। পরে নেতা-কর্মীরা মৎস ভবনের সামনে ২টি মোটরসাইকেল ও একটি প্রাইভেটকারে আগুন ধরিয়ে দেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

এই পরিস্থিতিতে খালেদা জিয়ার গাড়ি বহর চলে ধীর গতিতে। মামলায় খালেদা জিয়াসহ সব আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড চেয়েছে দুদক। অন্যদিকে খালেদা জিয়াকে নির্দোষ দাবি করে তার খালাস চেয়েছেন ৫ আইনজীবী। রায়কে কেন্দ্র করে আদালত ও আশপাশের এলাকা রয়েছে জোর নিরাপত্তা।