বিক্ষোভ মিছিলে উত্তাল রাঙ্গামাটি।

বিক্ষোভ মিছিলে উত্তাল রাঙ্গামাটি।

54
SHARE

নিজস্ব প্রতিনিধি :মোঃআহসান উল্লাহঃ- পার্বত্য চট্টগ্রামে বর্তমান সরকারের চলমান কর্মকান্ডে বাঁধার সৃষ্ঠিসহ অবৈধ অস্ত্রবাজ, চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে চিরুনী অভিযানের দাবি ও পাহাড়ে সকল প্রকার গুম, হত্যা, অপহরণ বন্ধ এবং সুস্থ রাজনীতির পরিবেশ বিঘ্নকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহবান জানানোর মধ্যদিয়ে রোববার পার্বত্য জেলা রাঙামাটি শহরে বিশাল মহা-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।পাহাড়ের সর্বস্তরের ভূক্তভোগী জনসাধারণ রোববার সকাল থেকেই দলে দলে রাঙামাটি শহরে এসে বেলা এগারোটার সময় শহরের প্রধান সড়কে ব্যারিকেড সৃষ্টিকরে বিশাল মিছিল করতে করতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সম্মুখে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়।

সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে আয়োজিত এই মহাসমাবেশের আহবায়ক সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রীদীপংকর তালুকদারের সভাপতিত্বে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ এর সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াযা, সম্পাদক হাজী মো: মূছা মাতব্বর, চেম্বার অব কমার্সে প্রেসিডেন্ট বেলায়েত হোসেন বেলাল, রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন শ্রমিকও পরিবহন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন পেশাজীবি মহলের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।সমাবেশে বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে স্থানীয় দু’একটি উপজাতীয় সশস্ত্র রাজনৈতিক দল রাজনীতির নামে এখানে অপরাজনীতি করছে।তারা জাতীয় রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত বিশেষ করে আওয়ামী লীগ এর রাজনীতির সাথে জড়িত উপজাতীয় রাজনীতিবিদদের হত্যা, অপহরণ, গুম করে আতংকের সৃষ্ঠি করছে।

পাশাপাশি তারা অস্ত্রের মুখে সাধারনজনগনকে জিম্মি করে এখানে সন্ত্রাসের আস্তানা তৈরিকরেছে।তাদের কাছে আজ সাধারণ জনগন অসহায়। তাই এসব সন্ত্রাসী ও অবৈধ অস্ত্রধারীদের বিরুদ্ধে চিরুনী অভিযান শুরু করে তাদের সন্ত্রাসের আস্তানা সমূহ ধ্বংস করে দিতে হবে।সমাবেশের আগে রাঙামাটি শহরে বিশাল মিছিল বের করা হয়। রাঙামাটি পৌরসভার সামনে থেকে শুরু হয়েছে মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নিউ মার্কেট চত্বরের সামনে এসে শেষ হয়।মিছিলে রাঙামাটির বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, পেশাজীবি-সামাজিক সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীসহ অন্তত ৫ হাজার সংখ্যক পাহাড়ী ও বাঙ্গালী নারী-পুরুষ অংশ নেয়। বিপুল সংখ্যক লোকজনের অংশগ্রহণের কারণে এই মিছিল জনসমুদ্রে পরিনত হয়।